Wellcome to National Portal
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ জুন ২০২২

প্রেস আপিল বোর্ডের কার্যক্রম

 

ধারা ২(ক). প্রেস আপিল বোর্ড গঠন

 সরকার নিম্নবর্ণিত সদস্যদের সহ একটি প্রেস আপিল বোর্ড গঠন করবে, যথা: -

(ক) প্রেস কাউন্সিল আইন, 1974 (1974 এর XXV) এর অধীন প্রতিষ্ঠিত প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান, যিনি তার চেয়ারম্যানও হবেন;

(খ) প্রেস কাউন্সিলের একজন সদস্য যিনি চেয়ারম্যান কর্তৃক মনোনীত হবেন;

(গ) যুগ্মসচিবের নিম্নে নয় এমন একজন কর্মকর্তা যিনি সরকার কর্তৃক মনোনীত হবেন।]

 

ধারা ১২. ঘোষণার অনুমোদন

 (১) উপ-ধারা (২) এর বিধান সাপেক্ষে, ধারা 7 এর অধীন প্রদত্ত এবং ঘোষিত প্রত্যেক ঘোষণার প্রতিটি সদৃশ মূলধন, জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের স্বাক্ষর এবং সরকারী সীল দ্বারা অনুমোদিত হবে, যাকে বলা হয়েছে।

(২) জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ঘোষণাটি অনুমোদন না করলে তিনি সন্তুষ্ট না হন যে- (ক) মালিক, প্রিন্টার এবং প্রকাশক বাংলাদেশের নাগরিক; (খ) স্বত্বাধিকারী, তিনি নিজেই প্রিন্টার বা প্রকাশক নন, তিনি এই ঘোষণা ঘোষণা করার অনুমতি দিয়েছেন; (গ) প্রকাশ করা প্রস্তাবিত সংবাদপত্রের শিরোনামটি একই প্রকাশকের শিরোনামের মতো নয়, একই দেশে একই দেশে প্রকাশ করা হয়, একই প্রকাশক বা অন্য কোনও প্রকাশকের প্রকাশিত বিভিন্ন সময়ের সংবাদপত্র নয়। অন্য সংবাদ থেকে প্রকাশিত একই সংবাদপত্রের সংস্করণ; (ঘ) প্রিন্টার বা প্রকাশক ধারা 7 এর অধীন ঘোষণার তারিখ এবং পাঁচ দিনের মধ্যে নৈতিক নৃশংসতার সাথে জড়িত অপরাধের জন্য দোষী সাব্যস্ত হননি; 1 [* * * (চ) প্রিন্টার বা প্রকাশক কোন আদালতে পাগলাটে বা অস্বস্তিকর মন খুঁজে পাওয়া যায় নি; (জি) ২ [মালিক বা প্রকাশক] নিয়মিত সংবাদপত্র প্রকাশের জন্য প্রয়োজনীয় আর্থিক সংস্থান; এবং (এইচ) সম্পাদক যুক্তিসঙ্গত শিক্ষাগত যোগ্যতা আছে বা সাংবাদিকতা পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ বা অভিজ্ঞতা আছে।

(৩): যদি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ঘোষণাপত্রটি অনুমোদন করতে অস্বীকার করে, তবে ঘোষণাকারী ব্যক্তি এই প্রত্যাখ্যানের পঁচিশ দিনের মধ্যে প্রেস আপিল বোর্ড বরাবর আপিল করতে পারেন, প্রেস আপিল বোর্ড শুনানী করে যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে তাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

(৪): যদি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ৬০ দিনের মধ্যে ঘোষণাপত্র অনুমোদন করতে ব্যর্থ হয়, তবে ঘোষণাকারী ব্যক্তি ঘোষণাটি অনুমোদনের জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্দেশ দেওয়ার জন্য প্রেস আপিল বোর্ড বরাবর আবেদন করতে পারবেন এবং প্রেস আপিল বোর্ড এই ধরনের আবেদনকে যথাযথ মনে করতে পারবে।


 

ধারা ২০. প্রমাণীকরণ বাতিল

(১) যে কোন সময়, জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, যিনি বিভাগ ১২ এর অধীনে একটি ঘোষণা অনুমোদন করে, তা সন্তুষ্ট হন, তারপরে প্রমাণীকরণের পরে, - (ক) মালিক, প্রিন্টার বা মালিক বা প্রকাশক সংবাদপত্র বাংলাদেশের নাগরিক হতে চলেছে; ২ [(খ) প্রিন্টার বা প্রকাশক নৈতিক নৃশংসতার সাথে জড়িত অপরাধের জন্য দোষী সাব্যস্ত হয়েছে;] (গ) মুদ্রক বা প্রকাশক কোনও আদালতে পাগল বা অসম্মানিত মনে করা হয়েছে; অথবা ৩ [(ঘ) স্বত্বাধিকারী বা প্রকাশক নিয়মিত সংবাদপত্র প্রকাশের জন্য প্রয়োজনীয় আর্থিক সংস্থান বন্ধ করে দিয়েছেন, সে কারণে, লিখিত লিখিত আদেশ অনুসারে, ঘোষণাটির প্রমাণীকরণ বাতিল করতে পারে: তবে শর্ত থাকে যে, ঘোষণাকারী ব্যক্তিকে ঘোষিত হওয়ার যুক্তিসঙ্গত সুযোগ দেওয়ার পরে ছাড়া করা হবে।]

(২) উপ-ধারা (১) এর অধীন কোন আদেশ দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ কোন ব্যক্তি, এই আদেশের ৬০ দিনের মধ্যে প্রেস আপিল বোর্ড বরাবর আপিল করতে পারেন, প্রেস আপিল বোর্ড শুনানী করে যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে তাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

 

আপিল দায়েরের নিয়মাবলি:

দ্য প্রিন্টিং প্রেসেস এন্ড পাবলিকেশনস (ডিক্লারেশন এন্ড রেজিস্ট্রেশন) অ্যাক্ট, ১৯৭৩ অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট পত্রিকার ডিক্লারেশন প্রদান করেন এবং যুক্তিসংগত কারণ ব্যতিরেকে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ডিক্লারেশেন প্রদান না করলে কিংবা বাতিল করলে এ সংক্রান্ত সকল আপিল প্রেস আপিল বোর্ডের মাধ্যমে নিস্পত্তি করা হয়। দ্য প্রিন্টিং প্রেসেস এন্ড পাবলিকেশনস (ডিক্লারেশন এন্ড রেজিস্ট্রেশন) অ্যাক্ট, ১৯৭৩ (১৯৭৩ সনের ২৩নং আইন) এর সংযোজিত ১৯৯১ সনের ৮নং আইনের পার্ট ১অ এর ২অ ধারা অনুযায়ী সরকার প্রেস আপিল বোর্ড গঠন করে থাকে। পদাধিকার বলে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল এর চেয়ারম্যান প্রেস আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে নিযুক্ত হন। তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিবের নিম্নে নহে এমন একজন কর্মকর্তা এবং প্রেস কাউন্সিল এর একজন সদস্যকে সদস্য করে প্রেস আপিল বোর্ড গঠন করা হয়। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক ডিক্লারেশন বাতিল এবং ডিক্লারেশন প্রদানের অস্বীকৃতি বিরুদ্ধে প্রেস আপিল বোর্ডের মাননীয় চেয়ারম্যান বরাবর আপিল করতে হয়। আপিল দায়েরের নিয়মাবলী:


১) যদি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোনো পত্রিকার ডিক্লারেশন বাতিল করে, তবে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক জারিকৃত ডিক্লারেশন বাতিল সংক্রান্ত আদেশের তারিখ হতে ৬০ (ষাট) দিনের মধ্যে প্রেস আপিল বোর্ডের মাননীয় চেয়ারম্যান বরাবর আপিল করতে পারবেন। প্রেস আপিল বোর্ড শুনানী করে যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে তাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।


২) যদি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ডিক্লারেশন অনুমোদন করতে অস্বীকার করে, তবে ঘোষণাকারী ব্যক্তি এই প্রত্যাখ্যানের ৪৫ (পয়তাল্লিশ) দিনের মধ্যে প্রেস আপিল বোর্ড বরাবর আপিল করতে পারবেন, প্রেস আপিল বোর্ড শুনানী করে যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে তাই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।


৩) যদি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ৬০ (ষাট) দিনের মধ্যে ঘোষণাপত্র অনুমোদন করতে ব্যর্থ হয়, তবে ঘোষণাকারী ব্যক্তি ঘোষণাটি অনুমোদনের জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্দেশ দেওয়ার জন্য প্রেস আপিল বোর্ড বরাবর আবেদন করতে পারবেন এবং প্রেস আপিল বোর্ড এই ধরনের আবেদনকে যথাযথ মনে করতে পারবে।


Share with :

Facebook Facebook